কিছু ইতিবাচক চিন্তার উদাহরণ

চিন্তার শুদ্ধতা ও অশুদ্ধতা নিয়ে মানুষের মনে নানা সংশয় কাজ করে। মজার ব্যাপার হচ্ছে শুদ্ধ চিন্তা ও অশুদ্ধা চিন্তার ওপর নির্ভর করে বদলে যায় আমাদের জীবনের অনেক কিছুই। তাই এসব ব্যাপারে খেয়াল করতে হবে আমাদের।

জীবন যেহেতু চলবেই, সেহেতু শুদ্ধ চিন্তার পথেই চলুক, যাতে ভেতর থেকেও শক্তি পাওয়া সম্ভব হয় এবং হতাশা দূর হয়। আর এই শক্তিকে কাজে লাগিয়ে সফল হতে চাইলে আপনাদেরকে অবশ্যই শুদ্ধ চিন্তার ধারক ও বাহক হতে হবে।

চলুন আরও কিছু উদাহরণ জেনে নেয়া যাক শুদ্ধ ও অশুদ্ধ চিন্তার।

অশুদ্ধঃ আমি আমার আর্থিক অবস্থান নিয়ে চিন্তিত। ইতোমধ্যেই আমি অনেক টাকা খরচ করে ফেলেছি।

শুদ্ধঃ আমি মহাবিশ্বের প্রাচুর্যের মাঝে বসবাস করি। আমার যা আছে তা নিয়ে ভবিষ্যতেও সুখী হবো। আমার যা দরকার, তা কাজের মাধ্যমে মহাবিশ্বই সরবরাহ করবে।

অশুদ্ধঃ আমাকে অনেক কিছু করতে হবে। কিন্তু আমি কুলিয়ে উঠতে পারছি না।

শুদ্ধঃ আমি শান্তিতে আছি। এই মুহূর্তে আমি কেবল একটা জিনিস করবো, আমার বাকি থাকা কাজগুলোর ভেতর। এরপর একে একে সব।

অশুদ্ধঃ আমি যেই কাজ করি, তা দিয়ে বেশিদূর এগোতে পারবো না।

শুদ্ধঃ যে কাজটি আমি করছি সেটা দারুণ। পারলে আমি এর চেয়ে আরো ভালো কিছু করবো।

অশুদ্ধঃ আমার স্বাস্থ্য নিয়ে আমি চিন্তায় আছি। আমি রোগা এবং অসুস্থ হয়ে যাচ্ছি দিনকে দিন।

শুদ্ধঃ আমি স্বাস্থ্যবান। আমি দুরন্ত মহাবিশ্বে বাস করি। আমি সুস্থ থাকার চেষ্টা করি সবসময়।

অশুদ্ধঃ এত লোকের দুঃখে আমিও ভালো থাকতে পারছি না।

শুদ্ধঃ আমি এমন একটা পৃথিবীতে আসিনি যেখানে সবাই একই সময়ে একই অভিজ্ঞতা লাভ করবে। তাই আমি নিজে সুখ অনুভব করবো, এবং যতটা পারি মানুষের দুঃখ দূর করবো।

অশুদ্ধঃ আমি যাকে ভালোবাসি সে আমাকে অবহেলা করে, অন্যকে ভালোবাসে। এমতাবস্থায় আমি সুখী হতে পারি না।

শুদ্ধঃ খারাপ লাগাটা এমন অবস্থার পরিবর্তন করবে না। আমি বিশ্বাস করি, যদি আমি ভালোবাসার উৎসের সাথে সংযুক্ত থাকি, তাহলে আমার জীবনেও ভালোবাসা ফিরে আসবে। আমি সবসময়ই সুখ অনুভব করবো আমার যা আছে সেসব নিয়ে। যা নেই সেটা নিয়ে দুঃখ করবো না।

আশা করি যাপিত জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে আপনারা এসব বিষয় মেনে চলবেন। বিভিন্ন উৎস থেকে সংগৃহীত এসব উদাহরণের মতই নিজের জীবনের প্রতিটি সমস্যাকে ইতিবাচক দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করতে শেখার মধ্যে দিয়েই সফলতা অর্জন করতে পারবেন আপনি।

 

ত্বাইরান আবির
লেখক, অনুবাদক, কনটেন্ট রাইটার


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *