নেতিবাচক মানুষের সাথে থাকলে কী হবে?

আপনার ইতিবাচক বন্ধুত্বের মূল্যায়ন করুন। যদি তা বহু বছর ধরে চলে আসা বন্ধুত্বও হয়, তবুও বন্ধুত্বের মূল্য রক্ষা করা জরুরী। বিশ্বাস করুন, এটা ছোটখাটো কোন বিষয় নয়। যারা আপনার সময় দখল করে রাখে, আপনার সবচাইতে দামী সম্পত্তি তথা মনের ওপর তাদের ব্যাপক প্রভাব রয়েছে। এখন আমি আপনাদেরকে একটি প্রশ্ন করি- আপনারা কি অগণিত নেতিবাচক মানসিকতার বন্ধু দিয়ে পরিবেষ্টিত? তাহলে অনুগ্রহ করে আজ থেকেই তাদেরকে সময় দেয়া বন্ধ করুন। অথবা সময় কম দিন। তাদের সাথে সময় কাটালে আপনার কোন ফায়দা নেই। ফায়দা খোঁজার এই ব্যাপারটিকে নিপাট স্বার্থপরতা বলে ধরে নেবেন না। মূলত তারা আপনার সময়কে নষ্ট করে আপনার মানসিকতার ওপর বাজে প্রভাব ফেলে। বিষয়টা শুনতে খারাপ লাগছে, তাই না? আমি আপনাদেরকে সরাসরি বলতে চাই, হয় আপনি তাদের সাথে সময় কাটানো একেবারে বন্ধ করে দিন, আর নয়তো তা কমিয়ে আনুন।

আমি যদি আপনাদেরকে ওপরের কথাগুলো বলি, তাহলে আপনারা হয়তো বলবেন- ‘আমাদের কি নিজের নেতিবাচক মানসিকতার বন্ধুকে পরিত্যাগ না করে সাহায্য করা উচিত নয় ইতিবাচক মানসিকতা অর্জনে?’ দেখুন, আপনার জীবন একান্তই আপনার। আপনি যেমন ইচ্ছে করতে পারেন এবং অবশ্যই আপনি চাইলে নেতিবাচক মানসিকতার বন্ধুকে ইতিবাচক হওয়ার জন্য সাহায্য করতে পারেন। কিন্তু এতে করে তাদের পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলতে গেলে। যাহোক, আমি আপনাদের এই চেষ্টাকে স্বাগত জানাবো। কিন্তু সত্যি বলতে এতে কোন লাভ নেই। কেননা, অধিকাংশ নেতিবাচক মানসিকতার অধিকারী লোকগুলোই পরিবর্তন হতে চায় না। তারা কেবল চায় আপনি বসে বসে তাদের গালগপ্প শুনুন। তবুও যদি আপনি নেতিবাচক মানসিকতার ব্যক্তিদেরকে পরিবর্তন করার অদম্য তাড়না অনুভব করেন, তাহলে নিজেকে জিজ্ঞেস করুন- ‘কেন আমি এসব ব্যক্তিদের সাথে সময় কাটাতে চাই?’ দেখবেন সচেতন বা অবচেতন মনেই উত্তর আসবে ‘আপনি নিজেকে পেছনের দিকে ঠেলে দিচ্ছেন, তাদেরকে ফেরাতে গিয়ে।’ তবে নেতিবাচক মানসিকতার মানুষগুলোকে পরিবর্তন করার বিষয়টি বেশ চমৎকার, যদি সফলতা পাওয়া সম্ভব হয়। আমি আপনাদের এই কাজকে পুনরায় স্বাগত জানাই। কিন্তু একই কাজ যদি কয়েক বছর ধরে করার পর আপনি কাঙ্ক্ষিত ফলাফল পেতে ব্যর্থ হন, তাহলে ফিরে আসার বোধহয় এখনই সময়!

আমি এখানে অন্য আরেকটি পয়েন্ট শেয়ার করতে চাই আপনাদের সাথে। আর তা হচ্ছে- নেতিবাচক মানসিকতার ব্যক্তিরা যেকোন কাজে ইতিবাচক মানুষদের তুলনায় কম উপযুক্ত কিনা আমি এখানে সেই বিশ্লেষণ করতে চাচ্ছি না। আমি কেবল পরিস্থিতি তুলে ধরতে চেয়েছি। আপনি যদি নেতিবাচক লোকেদের সাথে বেশি সময় কাটান, তাহলে কী হতে পারে? আপনি কম সুখী হবেন এবং কম সফলতা পাবেন। আমি শুধু এই প্রশ্নেরই উত্তর দিতে চেয়েছি এবং আশা করি আপনারা উপকৃত হয়েছেন।

 

© Tayran Abir


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *