নেটওয়ার্কিং করার সুবিধাসমূহ

নেটওয়ার্কিং আপনাদেরকে সফলতা পেতে সাহায্য করে। সফলতা একসাথে আসে না। কয়েকটা ধাপে নিজেকে এগিয়ে নেয়ার পর থেকে সফলতা আসতে শুরু করে। আর এই প্রতিটি ধাপে ছোট ছোট সফলতার জন্য আপনার দরকার সুবিধা আদায় করে নেয়া। জীবনে কোন কাজেই আপনি সফল হতে পারবেন না, যদি সেসব কাজ করার সময় সুবিধা আদায় করে নিতে ব্যর্থ হন। নেটওয়ার্কিং আপনাকে এই ধরণের সুবিধা পেতে সাহায্য করে থাকে। এটা সত্য যে, আপনার সাফল্যের শুরুটা আসলে আপনাকে দিয়েই হয়। কিন্তু একসময় তা নির্ভরশীল হয়ে যায় পারস্পরিক সম্পর্ক ও সহযোগীতার ওপর। কেউই একা সফল হতে পারে না। আপনিও পারবেন না, যদিও আপনার সফলতার পথে আপনিই মূল চালিকাশক্তি। এজন্যই নেটওয়ার্ক তৈরি করা বেশ জরুরী। তো আপনার ব্যবসায়িক ও ব্যক্তিজীবনে নেটওয়ার্কিং যেসব সুবিধা দেয় তা হচ্ছে-

* নতুন ক্লায়েন্ট এবং ব্যবসা পেতে সাহায্য করে।

* কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে। গুরুত্বপূর্ণ পদের জন্য সঠিক লোক খুঁজে বের করতে সাহায্য করে।

* মূল্যবান তথ্য এবং রিসোর্স সরবরাহ করে।

* বিভিন্ন ব্যবসায়িক সমস্যা দূরীকরণে সাহায্য করে।

* নিত্যনতুন বন্ধুদের সাথে পরিচয় করিয়ে আপনার সামাজিক সম্পর্ককে ত্বরান্বিত করে।

* আপনাকে বিভিন্ন ধর্ম, বর্ণ এবং নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর সাথে সংযুক্ত হতে সাহায্য করে।

* মূল্যবান তথ্য এবং রিসোর্স শেয়ার করে।

* সর্বোপরি, আপনার আত্মিক উন্নয়নে সাহায্য করে।

আশা করি তথ্যটুকু আপনাদের সবার জন্যই সহায়ক হবে। বেস্ট অব লাক!

 

© Tayran Abir


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *