সমালোচনা সম্পর্কে বিখ্যাতদের যত মন্তব্য

আমরা অনেক সময়ই মানুষের সমালোচনা করে থাকি। মানুষের কাছ থেকে শিক্ষা না নিলেও, মানুষকে শেখানোর ক্ষেত্রে এগিয়ে থাকি আমরা সবাই। পরের সমালোচনা, শেখানো, বিচার করার মানসিকতা নিয়ে বহু মানুষই গড়ে উঠেছে, উঠবে। বলতে গেলে পুরো সমাজই এমন। কিন্তু আদৌ কি এসব করে কেউ কাউকে শেখাতে পারে? কোন পরিবর্তন সাধিত হয় মানুষ বা সমাজের, সমালোচনা করার দ্বারা? একদমই হয় না। উল্টো মানুষের সহজাত অহমিকাতে এসব আঘাত হানে সরাসরি দোষারোপ করার ফলে। বিদ্বেষ সৃষ্টি হয় পরস্পরের প্রতি। জগতের বহু বড় বড় মানুষ তাই সমালোচনা, দোষারোপ করা এবং মানুষকে প্রতিনিয়তই বিচার করে অপদস্ত করতে নিরুৎসাহিত করেছেন। সময়ে সময়ে অনেক মনীষীই এসবের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন। চলুন জেনে নেয়া যাক এ সংক্রান্ত কতিপয় উক্তি-

আলেক্সান্ডার পোপ বলেছেন- “মানুষকে কোনকিছু শেখাতে গেলে এমনভাবে শেখানো উচিত যেন আপনি তাকে শেখাচ্ছেন, এটা তারা বুঝতে না পারে।”

তিনশো বছরেরও বেশি সময় পূর্ব গ্যালিলিও বলেছিলেন- “মানুষকে আপনি কখনোই কোনকিছু শেখাতে পারেন না। আপনি কেবল আপনার উপলব্ধিগুলো অন্যের মাঝে আবিষ্কার করতে পারেন।”

লর্ড চেস্টারফিল্ড তার ছেলেকে বলেছিলেন- “সবসময়ই চেষ্টা করে যাও সবার চেয়ে জ্ঞানী একজন মানুষ হিসেবে নিজেকে তৈরি করতে। তবে তুমি যদি প্রজ্ঞাবান একজন হয়েও যাও, তবুও মানুষের কাছে এসব জাহির করার কোন প্রয়োজন নেই।”

দার্শনিক সক্রেটিস এথেন্সে তার অনুসারীদেরকে সবসময়ই বলতেন- “আমি কেবল একটা কথাই জানি যে, আমি কিছুই জানি না।”

ওপরের উক্তিগুলো থেকে আমাদের শিক্ষা নেয়া উচিত। কখনোই সমালোচনা করা, অকারণে মানুষকে বিচার করা এবং মানুষের সামনে নিজের বিদ্যা জাহির করা উচিত নয়।

 

© Tayran Abir


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *