এক সাহসী গার্ডের গল্প

কয়েক বছর আগের কথা। একজন শিল্পপতির স্ত্রী তাদের কর্মস্থলের চারপাশ আমাকে ঘুরে ঘুরে দেখাচ্ছিলেন। তখন কোম্পানির একটি স্থানে আমরা ঢুকতে যাচ্ছিলাম। জায়গাটি কিছু কারণে বন্ধ ছিলো, যাতে সর্বসাধারণ না ঢুকতে পারে। যেই আমরা ওই স্থানের সিঁড়ি বেয়ে ওপরে যাচ্ছিলাম, সেখানে থাকা সিকিউরিটি গার্ড আমাদেরকে থামালো। এতে ওই ভদ্রমহিলা বেশ লজ্জা পেলেন, একইসাথে ক্ষুব্ধ হলেন। তিনি সহসাই সিকিউরিটি গার্ডকে এড়িয়ে গিয়ে ভেতরে ঢুকলেন এবং সিনিয়র কাউকে গিয়ে উক্ত সিকিউরিটি গার্ডের কারবার সম্পর্কে ক্রুদ্ধ হয়ে অভিযোগ করলেন ভদ্রমহিলার পরিচয় সম্পর্কে অবগত না থাকার কারণে।

ঐ রাতে আমি ভালোভাবেই কল্পনা করতে পারছিলাম উক্ত সিকিউরিটি গার্ড কতটা অপদস্ত হয়েছিলো। তার জীবনে হয়তো সে আর আভিজাত্যের সাথে ফ্লুয়েন্টলি ইংরেজি বলা কাউকে থামাবে না। কিন্তু আইটি ইন্ডাস্ট্রিতে হলে একই আচরণের জন্য তাকে সম্মাননা দেয়া হতো, তার ফটো থাকতো ইন্ট্রানেটে, এমনকি সম্ভবত সে স্পট এ্যাওয়ার্ডও পেতো। মাইন্ডট্রির সিকিউরিটি গার্ডদের আমাদের কাউকে তোষামোদ করে স্যালুট করার পরিবর্তে তাদেরকে দায়িত্ব পালনে কঠিন নিয়ম বেঁধে দেয়া হয়েছিলো। সিকিউরিটি গার্ডদের কাজ ছিলো কোম্পানির দেখাশোনা করা, আমাদেরকে ‘জি হুজুর জি হুজুর’ করা নয়।

বইঃ সফল উদ্যোক্তা
রূপান্তরঃ ত্বাইরান আবির

 

© ত্বাইরান আবির


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *