আর ভালোবাসা নয় (অভিমান)

ভালোবাসা আমি একবারই হারিয়েছিলাম। আমার মনে পড়ে সেবার কেমন মৃত্য লাশের ন্যায়- পড়ে ছিলাম আমি। না, আমি জ্ঞান হারাইনি। আমার হিতাহিত জ্ঞান ছিলো, আমি স্পষ্ট বুঝতে পারছিলাম সব, আমার সময় কেটে যাচ্ছিলো ধীরলয়ে। তবে মনে শান্তি ছিলো না। আমি কোথাও পাইনি একটু শান্তির নিবাস। এমন নয় যে- আমার বাড়ি ছিলো না- ছিলো না আশ্রয় নেবার জায়গা। তবুও আমি ছিলাম গৃহহীন বাস্তুহারা ভবঘুরের ন্যায়। ঘরে বাইরে কোথাও নিজেকে খুঁজে পাচ্ছিলাম না। আমার আজো মনে পড়ে সেই জটিল সময়, সেই ঘুণে ধরা সময়, যা শুরু হয়েছিলো ভালোবাসা হারানোর পর। ঐ একবারই আমি ভালোবাসা হারিয়েছিলাম- এরপর আর নিজেকে জড়াইনি মায়ায় কোনদিন- কখনোই না। কারণ- আমি হয়তো বেঁচে থাকতাম পুনর্বার ভালোবাসা হারালে, কিন্তু সেই বেঁচে থাকা হতো জীবন্মৃতের ন্যায়, যেমনটা ঘটেছিলো বহু বছর পূর্বে- ভালোবাসা হারানোর সময়ে। সেই দাগ আমার মনে আজো রয়ে গেছে, আজো আমি ভালোবাসি না, ভালোবাসতে সাহস পাই না। যদি হারিয়ে ফেলি, যদি হাতটি ছেড়ে চলে যায় কেউ- কী হবে তখন? আরো একবার জীবন্মৃত হয়ে বেঁচে থাকতে চাই না আমি। এবার একটু সুখ পেতে চাই, স্বার্থপর হতে চাই। তোমরা সুখ খোঁজো ভালোবাসায়, আমি খুঁজি একাকীত্বে। জীবন আমাকে একা বাঁচতে শিখিয়েছে। এখন আর আমি কাঁদি না, কোনকিছুতেই ভয় পাই না, আমার নেই কাউকে নিয়ে কোন দুশ্চিন্তার মুহূর্ত- একাকী আছি বেশ। একবারই আমি ভালোবাসা হারিয়েছিলাম জীবনে- এখনো আমার জীবনে কাটেনি সেই রেশ।

 

(সমাপ্ত)


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *