টাইম ইজ মানি অর নট?

‘টাইম ইজ মানি’- এমন একটি কথা নিশ্চয়ই আপনারা সবাই শুনেছেন। ছোট থেকেই এই কথা শুনতে শুনতে বড় হওয়া মানুষের সংখ্যা নিতান্তই কম নয়। সময়ে সময়ে বিভিন্ন মানুষ আমাদেরকে হয়তো বলেছে- টাইম ইজ মানি। কখনো স্কুলের শিক্ষক বলেছে কথাটি, কখনো আবার নিজের বড় ভাই হয়তো মাথায় হাতে রেখে বলেছে- “ঠিকমতো কাজ কর। টাইম ইজ মানি।” আক্ষরিক দিক থেকে চিন্তা করলে কথাটি একেবারেই ঠিক নয়। এটা আপনি আমি সবাই জানি। কেননা, সময় কখনোই টাকা হতে পারে না। কিন্তু ভাবার্থের দিক থেকেও যদি চিন্তা করি, তাহলেও একটু ভুল পাওয়া যাবে। কীভাবে? প্রশ্ন জাগতে পারে। আমি যদি বলি- টাইম ইজ নট মানি, তাহলে আপনারা কী মনে করবেন? কেউ হয়তো বলবেন আপনি ভুল, কেউ বলবেন আমার চিন্তা আলাদা। তবে আমি বলবো, টাইম ইজ নট মানি কথাটি সত্য। টাইম ইজ মানি কথাটি যেমন সত্য, অন্যভাবে টাইম ইজ নট মানি কথাটিও সত্য। আসলে দু’টি কথাই সত্য, দু’টি ভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে। যেমন- আপনি যদি অবহেলা করে সময় ব্যয় করতে থাকেন, তাহলে আপনার হাজারো মুহূর্ত আপনাকে আয় করতে সাহায্য করবে না। একটি টাকাও আপনার একাউন্টে যোগ হবে না। কোটি বছর চলে গেলেও আপনি কোন ফলাফল লাভ করতে সক্ষম হবেন না সময়ের কাছ থেকে। তাহলে কেন বলা হয় টাইম ইজ মানি? প্রশ্ন জাগতে পারে। এখানে আসলে সূক্ষ্ম একটি বিষয় নিহিত রয়েছে। সময় কখন আপনার জীবনে আয় যুক্ত করতে সক্ষম? যখন আপনি সময়কে সঠিকভাবে কাজে লাগাবেন এবং পরিশ্রম করবেন, ঠিক তখনই। তো পরিশ্রম ও সময়ের সঠিক ব্যবহার ব্যতিরেকে ‘টাইম ইজ মানি’ কথাটির আসলে কোন মূল্য নেই। বরং এক্ষেত্রে উল্লেখ করার মতো কথা হচ্ছে ‘টাইম ইজ নট মানি’। আবার যদি আপনি সময়ের সদ্ব্যবহার ও পরিশ্রমের সমন্বয় করতে পারেন, সেক্ষেত্রে ‘টাইম ইজ মানি’ কথাটি সত্যতা পায়। অর্থাৎ, টাইম ইজ মানি হোক, কিংবা টাইম ইজ নট মানি হোক, সকল কথাই সত্যতা লাভ করে আপনার কাজের ওপর। কেননা, কথাগুলো আসলে আপেক্ষিকতা মেনে চলে। আপনার পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে সেসব সত্য অথবা মিথ্যা প্রমাণিত হয়। মানে হচ্ছে, আপনিই সব। আপনিই নিজের ভাগ্য পরিবর্তনকারী। কী? অবাক হচ্ছেন? অবাক হওয়ার আসলে কিছুই নেই। আমরা এই সহজ বাস্তবতা বুঝতে পারি না বলেই জীবন পথে সফল হতে পারি না। আমরা, আমাদের কাজ- এসবই আমাদেরকে সফল করে তুলতে পারে। বিপরীতে, আমরা ও আমাদের অলসতা- এসব আমাদেরকে করতে পারে ব্যর্থ। সময় এখানে সাক্ষী হিসেবে আবির্ভূত হয়। দেখতে থাকে আমাদের কার্যক্রম। সময় হচ্ছে একজন ব্যক্তির মতো, যে কিনা সবসময়ই আমাদেরকে দেখে চলেছে। তবে সময়ের এত মূল্য কেন বলুন তো? কারণ, সময় হচ্ছে সেই রহস্যময় প্রবাহ, যা কেবল সামনের দিকে যেতে থাকে, কখনোই পেছনে ফিরে আসে না। আপনি একবার যে সময়কে পাচ্ছেন, পুনরায় তাকে ফিরে পাবার আর কোন উপায় নেই। জগতের অনেক কিছুই ফিরে পাবার সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু সময়কে আপনি কোনদিন ফিরে পাবেন না। তাই যথাসম্ভব একে (সময়) কাজে লাগাতে পারলেই একদিন নিজেকে সফল ব্যক্তিত্ব হিসেবে দেখতে পাবেন। সুতরাং পরামর্শ থাকবে, জীবনের যেকোন এ্যাঙ্গেল থেকে সময়কে অর্থবহ করে তোলার চেষ্টা করবেন। তাহলে পরবর্তীকালে জীবনের অন্তিম মুহূর্তে এসে তৃপ্তির হাসি নিয়েই বিদায় নিতে পারবেন পৃথিবী থেকে। আপনার কাজ, আপনার পরিশ্রমই আপনাকে জানিয়ে দেবে আপনার জীবনে টাইম ইজ মানি অথবা টাইম ইজ নট মানি কথা দু’টোর মাঝে কোনটি বাস্তবতা হিসেবে হাজির হয়েছে।

(সমাপ্ত)


Posted

in

by

Tags:

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *